টিউটোরিয়াল

Payza তে একাউন্ট তৈরি, ভেরিফাই, টাকা ঢুকানো, পাঠানো, উত্তোলন, কিভাবে লেনদেন করলে কত টাকা চার্জ কাটে? বিস্তারিত জেনে নিন।

প্রিয় পাঠক,

আশা করি সবাই ভাল আছেন। অনেকেই আছেন যারা অনলাইনে টাকা ইনকাম করার পর চিন্তা করেন সেই টাকা কিভাবে উত্তোলোন করবো? অনেক কম্পানী আছে যারা পেজাতে প্রেমেন্ট দিয়ে থাকে। Payza (পেজা) ব্যবহার করে ডলার যদি বাংলাদেশে নিয়ে আসতে চান তারা যে প্রশ্নগুলোর সম্মুখিন হতে হয় সেগুলো হলো-

  • ১. Payza তে একান্ট তৈরি করার সঠিক নিয়ম কি?
  • ২. Payza একাউন্ট কেন ভেরিফাই করতে হয় এবং কিভাবে ভেরিভাই করতে হয়?
  • ৩. Payza তে কিভাবে লেনদেন করা হয়?
  • ৪. Payza তে কিভাবে টাকা Send funds বা টাকা পাঠাতে হয়?
  • ৫. Payza তে কিভাবে টাকা Receive বা গ্রহণ হয়?
  • ৬. Payza তে কিভাবে অন্য কারো পেজা একাউন্টে Request funds বা টাকা চাইতে হয়?
  • ৭. Payza তে কিভাবে টাকা Add Found বা Cash in করতে হয়?
  • ৮. Payza তে কি কি উপায়ে টাকা Withdraw funds বা ক্যাশ আউট করতে হয়?
  • ৯. Payza তে কিভাবে লেনদেন করলে কত টাকা চার্জ কাটে? ইত্যাদি।

Payza তে একাউন্ট খুলার জন্য এখানে ক্লিক করে পেজার সাইনআপ পেজে যান। এরপর  Sign Up বাটনে  ক্লিক করুন। এখন আপনি যদি Personal একান্ট খুলতে চান তাহলে আপনি Send funds, Make payments, Shop securely, Earn money, Exchange currencies, Use APIs এই সুবিধা গুলো পাবেন আর আপনি যদি Business একান্ট খুলতে চান তাহলে আপনি Send funds, Make payments, Shop securely, Collect payments, Earn money, Exchange currencies, Sell online, Invoice customers, Use APIs, Instant Payment Notifications,  Sell as a business, Manage your busines ইত্যাদি সুবিধা গুলো পাবেন।

এখন আপনি যদি অনলাইনে ওয়াল্ড ওয়াইড বিজনেস করতে চান তাহলে Business ক্লিক করবেন আর আপনি যদি শুধু নিজের কাজের জন্য এই একাউন্ট খুলতে চান তাহলে অবশ্যই Personal ক্লিক করবেন।তারপর যে ডায়লোগ বক্সটি আসবে তাতে অবশ্যই National ID কার্ড তথ্যের সাথে মিল রেখে আপনার নাম লিখবেন। তারপর Email address, এবং ইচ্ছেমত আট সংখ্যার উপরে একটি Password দিয়ে GET START এ ক্লিক করতে হবে। যে ইমেল দিয়ে Registration করলেন সেই ইমেল এর লগিন করে ইনবক্স এ গিয়ে আপনার ইমেইল কনফাম করার জন্য Email Validation লিংক এ ক্লিক করবেন। আপনার একাউন্ট এখন মোটামুটি কমপ্লিট যাবে।

আপনি এই একাউন্ট খোলার পর সেটা দিয়ে আপনার পেজার একাউন্ট থেকে অন্য যে কারো পেজা একাউন্টে টাকা পাঠাতে পারবেন এবং রিসিভও করতে পারবেন কিন্ত আপনি যদি টাকা উত্তলোন করতে চান সেক্ষেত্রে আপনার পেজা একাউন্ট অবশ্যই আপনার Payza একাউন্ট ভেরিভাই থাকতে হবে তা না হলে আপনি টাকা তুলতে পারবেন না। Payza একাউন্ট ভেরিফিকেশন করার জন্য একাউন্ট লগইন করে Profile নামটিতে ক্লিক করে Verification এ ক্লিক করুন। তারপর Document Validation এ ক্লিক করে Document Number   এর জায়গায় আপনার আপনার ন্যাশনাল আইডি কার্ড অথবা পাসপোর্টের নম্বর এবং তার স্ক্যান কপি তার সাথে আপনার নিজের এক কপি ছবি আপলোড করে দিন তারপর Next এ ক্লিক করুন তারপর ডকুমেন্টের ভিউ দেখতে পাবেন। আইডেন্টি ও ফটো ভেরিভাই হওয়ার পর আপনার একাউন্ট পুরোপুরি কমপ্লিট হয়ে যাবে।

তারপর আপনি সেখান থেকে সব ধরনের সুবিধা নিতে পারবেন।Payza তে বিভিন্ন ভাবে ডলার অথবা টাকা সহ যেকোন মুদ্রা লেনদেন করা যায়। যেমন লেনদেন করার অপশন গুলো হলো- #Send funds     #Request funds    #Add Funds    #Withdraw Funds ইত্যাদি। Payza তে কিভাবে টাকা Send বা পাঠাতে হলে Send funds- এই অপশন ক্লিক করতে হবে তারপর যার কাছে টাকা পাঠাবেন তার পেজা একাউন্টের ইমেইল এড্রেসটি To তে লিখে দিবেন। তারপর কত টাকা বা ডলার পাঠাবেন সেটা Amount তে লিখে দিবেন। যে দেশের মুদ্রা পাঠাবেন সেদেশের মুদ্রা Currency তে সিলেক্টশন করে দিবেন। টাকা পাঠানোর চারজ বা ফি আপনি না দেন তাহলে Recipient pays fees অপশন সিলেক্টশন করে দিবেন আর আপনি ফি সহ পরিশোধ করেন তাহলে Recipient receives full amount (I pay fees) অপশন সিলেক্টশন করে দিবেন তারপর Purchase Type এ টাকা পাঠানোর যেকোন একটি কারণ সিলেক্টশন করে কিছু একটা লিখে Next এ ক্লিক করে কনফার্ম করবেন।

যে কেউ যে কোন উপায়ে যদি আপনার একাউন্টে টাকা পাঠায় তাহলে Payza তে টাকা জমা হয়ে যায়। কে কোথা থেকে টাকা পাঠিয়েছে সেটার একটি নোটিফিকেশন আকারে All Activity অপশনে দেখা যায়। আপনার একাউন্ট থেকে কবে কত টাকা লেনদেন করেছেন সবকিছুর বিবরণ এই অপশনে নোটিফিকেশন আকারে নোট করা থাকে।Payza তে অন্য কারো পেজা একাউন্টে টাকা চাইতে হলে Request funds এই অপশনে ক্লিক করতে হবে তারপর যার কাছে টাকা চাইবেন তার পেজা একাউন্টের ইমেইল এড্রেসটি To তে লিখে দিবেন। তারপর কত টাকা বা ডলার পাঠাবেন সেটা Amount তে লিখে দিবেন।

যে দেশের মুদ্রা চাইবেন সেদেশের মুদ্রা Currency তে সিলেক্টশন করে দিবেন। তারপর Purchase Type এ টাকা পাঠানোর যেকোন একটি কারণ সিলেক্টশন করে কিছু একটা লিখে Next এ ক্লিক করবেন তারপর Send এ ক্লিক করবেন।Payza তে কিভাবে টাকা Add Found বা Cash in করতে হলে আপনাকে Add Found এই অপশনে ক্লিক করতে হবে তারপর টাকা এড করার কয়েকটি অপশন দেখতে পাবেন। যেমন:

#Bkash-  এই অপশনে ক্লিক করার পর নিচের মত একটি ইন্সট্রাকশন দেখতে পাবেন।যেকোন মোবাইল বিকাশ একাউন্ট ঢুকার জন্য *247# ডায়াল করার পর Payment অপশনে গিয়ে পেজার উক্ত বিকাশ নম্বর টাইপ করে এমাউন্ট বসিয়ে দিয়ে send করতে হবে। কাউন্টার নম্বর ওয়ান লিখতে হবে তারপর আপনার বিকাশ নম্বরের পিনটি দিয়ে দিবেন। এখানে টাকা ঢুকাতে গেলে আপনার প্রতিবার ১.৯% হারে টাকা কাটা যাবে। তারপর bKash Transaction Id তে Transaction Id নম্বর বসিয়ে Create Transaction ক্লিক করতে হবে। তারপর আপনার একাউন্টে টাকা এড হবে।

#Over the Bank Counter               –

তে বাংলাদেশে থেকে টাকা ঢুকানোর একটি সহজ পদ্ধতি হল Over the Bank Counter। এই পদ্ধতিতে বাংলাদেশে থেকে আপনার পেজা একাউন্টে ফ্রীতে টাকা ঢুকাতে পারবেন।  Over the Bank Counter-এর মাধ্যমে টাকা ঢুকাতে আপনার কোনো ব্যাংক একাউন্টের প্রয়োজন হবে না। শুধু তাই নয়। এই পদ্ধুতিতে আপনি আপনার টাকা সাথে সাথেই ঢুকাতে পারবেন। আপনাকে Bangladesh Commerce bank Ltd. (BCBL)-এর শাখায় গিয়ে teller এর কাছে গিয়ে টাকা জমা দিতে হবে। তবে তার আগে আপনাকে Payza থেকে একটি Short Code সংগ্রহ করতে হবে। টাকা জমা নেওয়ার সময় teller আপনার কাছে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র, ইমেইল এরং সেই Short Code টি চাইবেন। এই তিনটি জিনিস ব্যাংকের teller কে দেখানোর সাথে সাথেই আপনি আপনার টাকা জমা করতে পারবেন।          

#Credit Card       এই পদ্ধতিতে ব্যবহার করে আপনি আপনার টাকা পেজা একাউন্টে জমা করতে পারবেন। সেজন্য Credit Card এই অপশনে ক্লিক করে আপনার নাম এবং আপনার Master Card/Visa  এড করার জন্য কাড নাম্বার দিতে হবে তারপর আপনার কার্ডের Expiration Date দিতে হবে তারপর Billing Currency অর্থাৎ মুদ্রার নাম দিয়ে next এ ক্লিক করে send করতে হবে।

Payza তে যে উপায়গুলো ব্যবহার করে টাকা Withdraw funds বা ক্যাশ আউট করতে পারবেন সেগুলো হলো-

#Over the Bank Counter  –

Payza থেকে বাংলাদেশে টাকা আনার আর একটি সহজ পদ্ধতি হল Over the Bank Counter। এই পদ্ধতিতে বাংলাদেশে টাকা আনতে মাত্র ৫০ টাকা ফি প্রদান করতে হয়। Over the Bank Counter-এর মাধ্যমে টাকা আনতে আপনার কোনো ব্যাংক একাউন্টের প্রয়োজন হবে না। শুধু তাই নয়। এই পদ্ধুতিতে আপনি আপনার টাকা সাথে সাথেই পেয়ে যাবেন। আপনাকে Bangladesh Commerce bank Ltd. (BCBL)-এর শাখায় গিয়ে teller এর কাছ থেকে টাকা তুলে আনতে হবে। তবে তার আগে আপনাকে Payza থেকে একটি Short Code সংগ্রহ করতে হবে। টাকা তুলার সময় teller আপনার কাছে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র, ইমেইল এরং সেই Short Code টি চাইবেন। এই তিনটি জিনিস ব্যাংকের teller কে দেখানোর সাথে সাথেই আপনি আপনার টাকা হাতে পেয়ে যাবেন।

#Bank Transfer-

Payza থেকে  টাকা আনার সব চেয়ে সহজ এবং নিরাপদ পদ্ধুতি হল Bank Transfer. বাংলাদেশে যদি আপনার একটি ব্যাংক একাউন্ট থাকে তাহলে Payza টাকা সেই ব্যাংক একাউন্টে খুব সহজেই নিয়ে আসতে পারবেন। ব্যাংক একাউন্ট টি যে কোনো একটি বাংলাদেশে অবস্হিত ব্যাংকের হলেই হবে। Bank Transfer-এর মাধ্যমে টাকা আনার সময় আপনাকে ২৪০ টাকা ফি প্রদান করতে হবে। তবে সবার আগে আপনাকে ব্যাংক একাউন্টটি Payza একাউন্টটে যুক্ত করতে হবে। ব্যাংক একাউন্ট Payza একাউন্টটে যুক্ত করার পদ্ধুতি টি নিচে ছবি সহ আলচনা করা হলো। এ পদ্ধুতিতে আপনার ব্যাংক একাউন্টটে টাকা আসতে ৪-৫ দিন সময় লাগবে। আর সর্বনিম্ন 40 ডলার হলেই ব্যাংক মাধ্যমে তুলতে পারবেন।

#Credit Card:

***এই ধরনের আরও টিপস-ট্রিকস, অফার এবং শিক্ষামূলক পোস্ট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন***

Visa Credit Card বা Master Card এর মাধ্যমেও আপনি Payza থেকে টাকা হাতে নিয়ে আসতে পারবেন। সে জন্য আপনার একটি Visa Credit Card থাকতে হবে এবং সেই Visa Credit Card টি Payza একাউন্টটে যুক্ত করতে হবে। টাকা তোলার সময় প্রতি ৫০০০ ডলার বাবদ চার্জ হিসেবে ৮ ডলার ফি দিতে হবে।

আপনার ফেসবুক একাউন্ট ব্যবহার করে মতামত প্রদান করতে পারেনঃ

নতুন পোস্ট’সমূহ

To Top